কিছুদিন আগেও ফেসবুকসহ অন্যান্য যায়গায় বিজ্ঞানের নাম গন্ধ প্রায় পাওয়াই যেত না। বিজ্ঞান শুধু ছিল পাঠ্যপুস্তক আর কতিপয় লোকের ব্যাপার। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে বিজ্ঞান আন্দোলন ব্যাপকভাবে শুরু হয়েছে। সবাখানেই সভা-সমাবেশসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতাও হচ্ছে। এর হাওয়া ফেসবুকেও লেগেছে। এই ধরুন ২০১০ নাগাদ ফেসবুকে সার্চ করে কোন বাংলায় বিজ্ঞান গ্রুপ বা পেজ পাওয়াই ছিল মুশকিল। কিন্তু এখন অভাব নেই। আর প্রতিযোগিতাগুলোর মধ্যে গনিত অলিম্পিয়াড অন্যতম। তাছাড়া ফিজিক্স অলিম্পিয়াডও নিয়মিতই হচ্ছে। আরো আছে ‘অ্যাস্ট্র অলিম্পিয়াড’। আবার এবারে প্রথমবারের মত হতে যাচ্ছে ‘বায়োলজি অলিম্পিয়াড’। গত দুই বছর ধরে হচ্ছে ‘শিশু কিশোর বিজ্ঞান কংগ্রেস’। তাছাড়া বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতেতো আছেই।

আবার, আমাদের দেশে অনেক গুলো বিজ্ঞান ম্যাগাজিনও বের হয়েছে। তবে পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে টিকতে পারেনি। যেমনঃ গ্যালাক্টিকা, Sciencetech24.com ইত্যাদি। তবে আমাদের কাছে আমাদের সবার প্রিয় ম্যাগাজিন জিরো টু ইনফিনিটি এখনো আছে। তারা একই সাথে তিনটা ম্যাগাজিন বের করছে প্রতি মাসে। তার মধ্যে পাই – জিরো টু ইনফিনিটি বাংলায় একমাত্র গনিত ম্যাগাজিন এবং বিশ্বের মধ্যে অন্যতম। তারা বিজ্ঞান নিয়ে ফেসবুক ও ব্যাবহারিক ভাবেও ব্যাপক প্রচার প্রচারনা চালাচ্ছে। বলতে গেলে এটি বাংলাদেশে বিজ্ঞান আন্দোলনের ক্ষেত্রে অন্যতম। এর মধ্যে সবথেকে বেশি অবদান হল @বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতির।

সামাজিক মাধ্যমেও রয়েছে অনেক গ্রুপ পেজ। যেমনঃ জিরো টু ইনফিনিটি, বিজ্ঞানমনস্ক, physics discussion forum , বিজ্ঞান ব্লগ , বিজ্ঞান স্কুল, বিজ্ঞান পাঠশালা.কম, বিজ্ঞানের জন্য ভালোবাসা (Love for science), বিজ্ঞানের মায়েরে বাপ, রহস্যময় বিজ্ঞান জগত, বিজ্ঞানবিশ, Science Society, একটুখানি বিজ্ঞান, বিজ্ঞানের রহস্য অন্বেষণ, বিজ্ঞান পত্রিকা ইত্যাদি।

আর এই পরিবারের নতুন সংযোজন হল ওমেগা প্রাইম। আমরাও চাই বাংলার ঘরে ঘরে বিজ্ঞান চর্চা হোক। বিজ্ঞানের আনন্দ যেন সবাই উপভোগ করতে পারে। সেই প্রত্যাশাতেই আমাদের পথ চলা। এই লক্ষ্যে আমরা প্রকাশ করতে যাচ্ছি একটা বিজ্ঞান ম্যাগাজিন। প্রত্যাশা করবেন আমরাও যেন সফল হতে পারি।

বিজ্ঞানের জয় হোক।